1. [email protected] : amzad khan : amzad khan
  2. [email protected] : NilKontho : Anis Khan
  3. [email protected] : Nil Kontho : Nil Kontho
  4. [email protected] : Nilkontho : rahul raj
  5. [email protected] : NilKontho-news :
  6. [email protected] : M D samad : M D samad
  7. [email protected] : NilKontho : shamim islam
  8. [email protected] : Nil Kontho : Nil Kontho
  9. [email protected] : user 2024 : user 2024
  10. [email protected] : Hossin vi : Hossin vi
আবাসন প্রত্যাশীদের মধ্যে আশা জাগিয়ে শেষ হলো রিহ্যাব মেলা! | Nilkontho
১৮ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | বৃহস্পতিবার | ৩রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
হোম জাতীয় রাজনীতি অর্থনীতি জেলার খবর আন্তর্জাতিক আইন ও অপরাধ খেলাধুলা বিনোদন স্বাস্থ্য তথ্য ও প্রযুক্তি লাইফষ্টাইল জানা অজানা শিক্ষা ইসলাম
শিরোনাম :
ছোটবেলায় মায়ের বয়সী শর্মিলাকে চড় মেরেছিলেন প্রসেনজিৎ, কেন? সকালের নাস্তায় রাখতে পারেন যেসব খাবার হানিফ ফ্লাইওভারে পুলিশ-শিক্ষার্থী সংঘর্ষে তরুণ নিহত ঢাকাসহ সারাদেশে ২২৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন ক্যান্সার আক্রান্তদের ৭৩.৫% পুরুষ ধূমপান, ৬১.৫% নারী তামাকে আসক্ত প্যারিসে ‘রৌদ্র ছায়ায় কবি কণ্ঠে কাব্য কথা’ শীর্ষক আড্ডা যে জিকিরে আল্লাহ’র রহমতের দুয়ার খুলে যায় কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কতা, দূতাবাস বন্ধ সারাদেশে আজ ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ কর্মসূচি আসামি ধরতে যেয়ে গ্রামবাসী হামলা ৫ পুলিশ সদস্য আহত, নারীসহ আটক ৭ বৃহস্পতিবার সারাদেশে  শাটডাউন’ কর্মসূচি ঘোষণা যুগান্তরের সাংবাদিক ও তার পরিবারের প্রাণনাশের হুমকির প্রতিবাদে মানববন্ধন জাবিতে পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় সংঘর্ষ শিক্ষার্থীদের ফরিদপুরে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩, আহত ৩০ শেরপুরে শিক্ষার্থী, ছাত্রলীগ ও পুলিশের ত্রিমুখী সংঘর্ষ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিন্দা জানালেন প্রধানমন্ত্রী খাওয়ার পর যে ৫ ভুল স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর ভিসি চত্বরে পুলিশের সাউন্ড গ্রেনেডে পাঁচ সাংবাদিক আহত ঢাবিতে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ দুই শিক্ষার্থী, আহত ১৫ সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

আবাসন প্রত্যাশীদের মধ্যে আশা জাগিয়ে শেষ হলো রিহ্যাব মেলা!

  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৬
  • ৩০ মোট দেখা:

নিউজ ডেস্ক:

পাঁচদিনের রিহ্যাব মেলা আজ রোববার শেষ হয়েছে। আবাসন সেক্টরের সবচেয়ে বড় এ মেলা রাজধানীবাসীর আবাসন প্রত্যাশা পুরোপুরি মেটাতে না পারলেও আবাসন কোম্পানি ও আবাসন প্রত্যাশীদের মধ্যে সেতু বন্ধন রচনা করতে পেরেছে বলে মনে করেন রিহ্যাব নেতৃবৃন্দ। একই সাথে আবাসনের খোঁজে আসা মানুষ মনে করেন, এ মেলা তাদের স্বপ্ন বাস্তবায়নে অনেকটা সহায়ক ভূমিকা রেখেছে। একটি জায়গায় অনেক কোম্পানিকে এক সাথে পাওয়া গেছে এবং পছন্দ মতো কোম্পানির কাছে যাওয়া সম্ভব হয়েছে এ মেলার কারণে। মেলা ছাড়া এটা সম্ভব হতো না।

রিহ্যাব সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিন বলেন, আবাসনে বিনিয়োগ করতে মানুষের আগ্রহ কখনো কম ছিল না। বিনিয়োগের পরিবেশ পেলে তারা আবাসনে বিনিয়োগটাকে প্রথম পছন্দ হিসেবে নিয়ে থাকেন। মাঝখানে বেশ কয়েক বছর বেশ স্থবির ছিল এ খাত। এ অবস্থা ধীরে ধীরে কাটতে শুরু করেছে। মেলায় লোক সমাগম দেখে এটাই মনে হলো।

আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আজ রাতে নির্ধারিত সময়ের পরেও দর্শক-ক্রেতারা ব্যস্ত ছিলেন নিজের জন্য আবাসন খুঁজতে। একদিকে স্টলগুলো গুটানো হচ্ছিল অন্যদিকে স্টলের লোকজন কথা বলছিলেন দর্শক-ক্রেতাদের সাথে। শেষ দিন বলেই ভীড় ছিল গুটানোর মুহূর্ত পর্যন্ত।

রিহ্যাবের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এবারো বেশির ভাগ স্টলে বুকিং হয়েছে। দর্শক-ক্রেতার ভীড়ও অন্যান্য বছরের চেয়ে কম ছিল না। তবে কতগুলো স্টলে বুকিং এবং কয়টি প্লট/ফ্ল্যাট বুকিং হয়েছে তা আজ সন্ধ্যার পরও বলতে পারেননি রিহ্যাব নেতৃবৃন্দ। মেলায় অনেক বেশি দর্শক-ক্রেতার উপস্থিতি থাকায় মেলা থেকে তথ্যগুলো পাওয়া সম্ভব ছিল না বলে জানান তারা। পরে সবার তথ্য একত্রিত করে জানানো হবে বলে জানালেন রিহ্যাব নেতৃবৃন্দ।

ফারুকুল ইসলাম একজন ব্যবসায়ী প্রথমবারের মতো রিহ্যাব মেলায় এসেছেন। সুন্দর দেখে ফ্ল্যাট বাছাই করতে চান। কথা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বাংলাদেশে চাহিদা ও সরবরাহকে সামনে রেখে সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান মিলে আবাসন সেক্টরে সমন্বিত একটি কাঠামো তৈরি করা যেতে পারে। তাহলে আবাসন সেক্টর লাভবান হবে। আবাসন সেক্টরকে আলাদা করে দেখার কোনো বিষয় নয়।

তিনি বলেন, আগামী দিনগুলোতে আবাসন সেক্টরে আরো বেশি কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে। দরিদ্র মানুষ এখানে কাজ করেন বলে আবাসন সেক্টর দারিদ্র্য দুরীকরণে অনেক বেশি ভূমিকা রাখতে পারবে। এ শিল্পের প্রতি নজর দিলে এটা দেশের অর্থনীতি বিকাশে সহায়ক ভূমিকা পালন করতে সক্ষম হবে। এজন্য প্রয়োজন রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা।

বাহ্যিকভাবে দেখলে মনে হবে দেশটা বেশ শান্ত। হরতাল নেই, জ্বালাও-পোড়াও নেই, নেই ভাঙচুর। ফলে ব্যবসা-বাণিজ্য ভালো হওয়ার কথা। কিন্তু মানুষের কাছে টাকা থাকা সত্বেও আস্থাহীনতায় তারা বিনিয়োগ ভরসা পাচ্ছে না। এখানে রাজনীতির হাত রয়েছে। তার মতে, রাজনীতির সুস্থ পরিবেশ নেই। যখন হরতাল-অবরোধ ও জ্বালাও-পোড়াও ছিল তখন ব্যবসায়ের পরিবেশ এতো খারাপ ছিল না। সামনে একটি ভালো নির্বাচন হলে, জনগণের সমর্থনে একটি সরকার ক্ষমতায় থাকলে বাংলাদেশের ব্যবসা-বাণিজ্য অবশ্যই আরো ভালো হবে।

ফারুকুল ইসলাম বলেন, ব্যাংকে তারল্যের অভাব নেই। কিন্তু ব্যাংক বিনিয়োগ করার জায়গা পাচ্ছে না। বাংলাদেশ ব্যাংকে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রা রয়েছে। এগুলো শুধু শুধু ব্যাংকে রেখে দিয়ে লাভ নেই। বিনিয়োগ কার উচিৎ। বিনিয়োগ করতে পারলেই তা লাভসহ ফিরে আসবে। কিন্তু স্মার্টলি বিনিয়োগ হচ্ছে না।

তিনি বলেন, বেসরকারি ব্যাংকে সুদ হারে যে ভিন্নতা রয়েছে আন্তর্জাতিক মার্কেটে তা নেই। আমাদের দেশে দরিদ্রদের সুদ হার বেশি। অপরদিকে ধনীদের থাকে গ্রেস পিরিয়ড। এ প্রবণতা দুর করে সবার জন্য সমান সুদ হার নির্ধারণ করতে হবে।

এই পোস্ট শেয়ার করুন:

এই বিভাগের আরো খবর

নামাযের সময়

সেহরির শেষ সময় - ভোর ৩:৫৮
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৫৯
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:০৩
  • ১২:১৪
  • ৪:৪৯
  • ৬:৫৯
  • ৮:২৩
  • ৫:২৫

বিগত মাসের খবরগুলি

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১