1. [email protected] : amzad khan : amzad khan
  2. [email protected] : NilKontho : Anis Khan
  3. [email protected] : Nil Kontho : Nil Kontho
  4. [email protected] : Nilkontho : rahul raj
  5. [email protected] : NilKontho-news :
  6. [email protected] : M D samad : M D samad
  7. [email protected] : NilKontho : shamim islam
  8. [email protected] : Nil Kontho : Nil Kontho
  9. [email protected] : user 2024 : user 2024
  10. [email protected] : Hossin vi : Hossin vi
চার ব্যাংকেরই বেড়েছে লোকসানি শাখা! | Nilkontho
২০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | সোমবার | ৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
হোম জাতীয় রাজনীতি অর্থনীতি জেলার খবর আন্তর্জাতিক আইন ও অপরাধ খেলাধুলা বিনোদন স্বাস্থ্য তথ্য ও প্রযুক্তি লাইফষ্টাইল জানা অজানা শিক্ষা ইসলাম
শিরোনাম :
৫০ দিনের মধ্যে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন: জরুরি বৈঠকে ইরানের মন্ত্রিসভা প্রেসিডেন্ট ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর মৃত্যু নিশ্চিত করল ইরান সরকার দেশে ফিরেছেন সেনাপ্রধান সোনার ভ‌রি ছাড়াল এক লাখ সাড়ে ১৯ হাজার মিষ্টির থাপড়াতে চাওয়া নিয়ে মুখ খুললেন-জয় মিশা-ডিপজলকে মূর্খ বললেন নিপুণ! পুলিশ বক্সে আগুন দিলো ব্যাটারিচালিত রিকশাচালকরা কেরুর শ্রমিক-কর্মচারীদের মাঝে ”উৎসবের আমেজ” শেষ হচ্ছে চুয়াডাঙ্গা সদর ও আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাচনের প্রচারণা বান্দরবানে সেনাবাহিনীর অভিযানে ৩ কেএনএফ সদস্য নিহত ওয়াজ শুনে প্রেমিকের সঙ্গে বাড়ি ফেরার পথে ধর্ষণের শিকার তরুণী, থানায় মামলা আশা শিক্ষা কর্মসূচী কর্তৃক অভিভাবক মতবিনিময় সভা জীবননগরে মায়ের বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজের অভিযোগ মেয়ের, শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন নিখোঁজ ঝিনাইদহ -৪ আসনের এমপি আনার ভোলার নির্বাচন হবে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য- কমিশনার আহসান হাবিব  আমাকে এত বড় দায়িত্ব দেওয়া হবে জানতাম না: শেখ হাসিনা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বিরূপ প্রভাব ঠেকাতে আসছে আইন – তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী “হেলমেট ছাড়া জ্বালানি তেল বিক্রি নিষিদ্ধ ঘোষণা” চুয়াডাঙ্গায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাইসাইকেল আরোহী নিহত নামাজের সময় তালা আটকে মসজিদে দেওয়া হলো আগুন, নিহত ১১

চার ব্যাংকেরই বেড়েছে লোকসানি শাখা!

  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৬
  • ২২ মোট দেখা:

নিউজ ডেস্ক:

চলতি বছরের জুলাই-সেপ্টেম্বর—এ তিন মাসে রাষ্ট্রমালিকানাধীন চার ব্যাংকেরই লোকসানি শাখা বেড়েছে। এ সময়ে অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংকের খেলাপি ঋণ বাড়লেও সোনালী ও জনতার কিছুটা কমেছে।
গত আগস্টে সোনালী, অগ্রণী ও রূপালী ব্যাংকে নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক দায়িত্ব নিয়েছেন। এ অবস্থায় ব্যাংক তিনটিতে কেউ খেলাপি ঋণ কমাতে আবার কেউ প্রকৃত তথ্য বের করার চেষ্টা করছেন বলে জানা গেছে। ফলে কারও উন্নতি, আবার কারও অবনতিও হয়েছে।
সোনালী ব্যাংক: সেপ্টেম্বর শেষে সোনালী ব্যাংকের লোকসানি শাখা বেড়ে হয়েছে ৩৭৩টি। জুন শেষে লোকসানি শাখা ছিল ২৯০টি। এ সময়ে ব্যাংকটির শাখা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২০৮টি। তবে সেপ্টেম্বর শেষে ব্যাংকটির খেলাপি ঋণ কমে হয়েছে ৮ হাজার ৫৬১ কোটি টাকা। জুন শেষে ব্যাংকটির খেলাপি ঋণ ছিল ৯ হাজার ৩২২ কোটি টাকা। খেলাপি ঋণের পাশাপাশি সেপ্টেম্বর শেষে ব্যাংকটির মূলধন ঘাটতিও কমে হয়েছে ২ হাজার ২৭৪ কোটি টাকা; যা জুন শেষে ছিল ২ হাজার ৬০৫ কোটি টাকা।
ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক দেশের বাইরে রয়েছেন। অন্য কেউ কথা বলতে রাজি হননি।
অগ্রণী ব্যাংক: এ ব্যাংকের মোট ৯৩৫টি শাখার মধ্যে সেপ্টেম্বর শেষে লোকসানে পড়ে ১২৩টি, জুন শেষে যা ছিল ৯৯টি। সেপ্টেম্বর শেষে ব্যাংকটির খেলাপি ঋণও বেড়ে হয়েছে ৫ হাজার ৭১১ কোটি টাকা; যা জুন শেষে ছিল ৪ হাজার ৯৯২ কোটি টাকা। সেপ্টেম্বর শেষে ব্যাংকটির মূলধন ঘাটতি হয়েছে ১১২ কোটি টাকা। জুন শেষে মূলধন ঘাটতি ছিল ১৯৯ কোটি টাকা।
অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শামস-উল-ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘আমরা গ্রামেগঞ্জে কম সুদে ঋণ দিয়ে থাকি। এসব ঋণে আমাদের মুনাফা বেশি থাকে না। বেতন দ্বিগুণ হয়ে যাওয়ায় এর তুলনায় খরচ বেশি। এ কারণে অনেক শাখা লোকসানে চলে গেছে।’
জনতা ব্যাংক: সেপ্টেম্বর শেষে জনতা ব্যাংকের লোকসানি শাখা বেড়ে হয়েছে ৯৯টি। জুন শেষে লোকসানিতে ছিল ৭৪টি। ব্যাংকটির শাখা বর্তমানে ৯১০টি। লোকসানি শাখা বাড়লেও সেপ্টেম্বর শেষে ব্যাংকটির খেলাপি ঋণ কমে হয়েছে ৪ হাজার ৯৮৫ কোটি টাকা। জুন শেষে ব্যাংকটির খেলাপি ছিল ৫ হাজার ৮৯১ কোটি টাকা। তবে এ সময়ে মূলধন ঘাটতি বেড়ে হয়েছে ৭৭১ কোটি টাকা। গত জুনে ঘাটতি ছিল ৬৬৪ কোটি টাকা।
জানতে চাইলে জনতা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুস সালাম বলেন, ‘খেলাপি ঋণ কমে আসছে। তবে প্রাতিষ্ঠানিক শাখাগুলো লোকসানে চলে গেছে। বছর শেষে মুনাফা ভাগাভাগি হলে এসব শাখা মুনাফায় ফিরবে। আমরা ব্যাংকটিকে ভালো অবস্থায় নেওয়ার চেষ্টা করছি।’
রূপালী ব্যাংক: সেপ্টেম্বর শেষে রূপালী ব্যাংকের লোকসানি শাখা বেড়ে হয়েছে ১৪৩টি। জুন শেষে লোকসানি শাখা ছিল ১২৬টি। ব্যাংকটির শাখার সংখ্যা ৫৬১টি। ব্যাংকটির খেলাপি ঋণ গত সেপ্টেম্বরে বেড়ে হয়েছে ৩ হাজার ২৯ কোটি টাকা। জুনে খেলাপি ঋণ ছিল ২ হাজার ৩৬০ কোটি টাকা। একই সঙ্গে ব্যাংকটির মূলধন ঘাটতিও বেড়ে হয়েছে ১ হাজার ৩৬৮ কোটি টাকা। জুন শেষে ঘাটতি ছিল ১ হাজার ৫২ কোটি টাকা।
রূপালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আতাউর রহমান প্রধান বলেন, ‘আগে অনেক অনিয়মিত ঋণকে নিয়মিত দেখানো হয়েছে। এখন প্রকৃত চিত্র বেরিয়ে আসছে। ফলে খেলাপির পাশাপাশি লোকসানি শাখাও বেড়েছে। এখন সব তথ্য অনলাইনে থাকায় প্রকৃত তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। ফলে পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হয়েছে।’
ব্যাংকিং-সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সঙ্গে সমঝোতা, পর্যবেক্ষক নিয়োগ, অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে চুক্তি—এরপরও আর্থিক অবস্থার অধোগতি ঠেকানো যাচ্ছে না সরকারি খাতের এসব ব্যাংকের। সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বলছেন, রাজনৈতিক বিবেচনায় দেওয়া ঋণই এখন কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে এসব ব্যাংকের জন্য।

এই পোস্ট শেয়ার করুন:

এই বিভাগের আরো খবর

নামাযের সময়

সেহরির শেষ সময় - ভোর ৩:৫৩
ইফতার শুরু - সন্ধ্যা ৬:৪৬
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৮
  • ১২:০৪
  • ৪:৩৯
  • ৬:৪৬
  • ৮:০৯
  • ৫:১৯

বিগত মাসের খবরগুলি

শুক্র শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১